fbpx
হোম History কেওক্রাডং- বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ।

কেওক্রাডং- বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ।

কেওক্রাডং (Keokradong) বাংলাদেশের দক্ষিণপূর্বে, বাংলাদেশ-বার্মা সীমান্তবর্তী জেলা বান্দরবনে অবস্থিত একটি সুউচ্চ পর্বতশৃঙ্গ। এর প্রকৃত অবস্থান রূমা উপজেলার রেমাক্রি মৌজার ঠিকাগাঁও পাড়াতে। এটি বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ। বহুদিন যাবতই কেওক্রাডংকেই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ হিসেবে দাবি করে আসা হচ্ছে এবং বিভিন্ন বই ও সাময়িকী এমনকি ওয়েবসাইটেও সেরকমই প্রকাশিত হয়ে আসছে।

কেওক্রাডং- বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ।
                                                       কেওক্রাডং- বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ।

যদিও বিভিন্ন প্রকাশনায় এই শৃঙ্গের উচ্চতা বলা হচ্ছে ১২৩০ মিটার, জি.পি.এস. (GPS) এবং রাশিয়ান টোপোগ্রাফিক ম্যাপ অনুসারে এর প্রকৃত উচ্চতা ১০০০ মিটারের কম। এই শৃঙ্গের উপরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর লাগানো একটি সাইনবোর্ডেও-এর উচ্চতা ৩,১৭২ ফিট লেখা রয়েছে। যদিও জারমিন জি.পি.এস দ্বারা এখানে নির্ণীত উচ্চতা ৩১৯৬ ফিট বা ৯৭৪ মিটার। শৃঙ্গটির ভৌগোলিক অবস্থান ২১°৫৭´০০´´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯২°৩০´৫৩´´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশে।

কেওক্রাডং- বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ।
                                                                                     কেওক্রাডং

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দিক থেকে এখানকার পাহাড়ী পরিবেশটি খুবই মনোরম। কেউ যদি কেওক্রাডং ভ্রমণ করতে চায় তাকে বগা লেক থেকে পায়ে হেটে রূমা উপজেলার মধ্য দিয়ে সেখানে পৌঁছাতে হবে। কেওক্রাডং বাংলাদেশের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ কিনা সেই নিয়ে বহুদিন ধরেই বিতর্ক রয়েছে এবং কিছু সূত্র মওদক মুত্তল কে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ বলে দাবি করছে। এখানে উল্লেখ্য কেওক্রাডং, তাজিংডং এবং মওদক মুন্ডল এই তিনটি হচ্ছে বাংলাদেশের পর্বতশৃঙ্গ সমূহের মধ্যে তুলনামূলকভাবে সুউচ্চ। ২০০৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে ইংরেজ অভিযাত্রী জিনজ ফুলেন জি.পি.এস দ্বারা মওদক মুওলের উচ্চতা নির্ণয় করেন ১০৬৪ মিটার যার ভৌগোলিক অবস্থান ২১°৪৭´১১´´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯২°৩৬´৩৬´´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশে। এই তথ্য রাশিয়ান টোপেগ্রাফিক ম্যাপ এবং (SRTM) এস.আর.টি.এম উপাত্তের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

Must Read

হেকিমি চিকিৎসা কি?

হেকিমি চিকিৎসা পদ্ধতি কি? হেকিমি চিকিৎসা (Hakeemi Treatment)  ইউনানি দর্শনভিত্তিক চিকিৎসা পদ্ধতি। উদ্ভিজ্জ ভেষজ দ্বারা ঐতিহ্যিক ধারায় রোগ নিরাময়ের এই পদ্ধতির চিকিৎসকরা হেকিম নামে পরিচিত। হেকিম...

অবচেতন মনকে নিয়ন্ত্রণ করবেন? কিন্তু কীভাবে?

মনে করুন, আপনি খুব সচেতনভাবেই চাইছেন কোনো একটি কাজ করতে। আপনার বন্ধু-বান্ধব ও পরিবারের সদস্যরাও আপনাকে প্রণোদনা যোগাচ্ছে কাজটি করার জন্য। কিন্তু বাস্তবে কাজটি করতে গিয়ে বারবার ব্যর্থ হচ্ছেন আপনি।

ডিকয় ইফেক্ট : অকারণে বেশি খরচ করতে উৎসাহী করে

ডিকয় ইফেক্ট: যা আপনাকে অকারণে বেশি খরচ করতে উৎসাহী করে

‘দ্য গডফাদার’ সিনেমার পেছনের ইতিহাস

'দ্য গডফাদার' চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে মারিয়ো পুজোর পঞ্চম উপন্যাস দ্য গডফাদারের উপর ভিত্তি করে। উপন্যাসটির যখন মাত্র ১০০ পৃষ্ঠা লেখা হয়, তখন থেকেই প্যারামাউন্ট বইটির স্বত্তাধিকার কেনার পরিকল্পনা করতে থাকে এবং শেষে ৮০,০০০ ডলারে সেটি কিনে নেয়। 'The Godfather Legacy' ডকুমেন্টরি থেকে জানা যায়, তখনকার প্যারামাউন্ট পিকচারসের ভাইস প্রেসিডেন্ট স্ট্যানলি জেফি টেলিফোন করেন আলবার্ট রুডিকে (গডফাদারের নির্মাতা), এবং জিজ্ঞেস করেন তিনি কি গডফাদার মুভির নির্মাতা হতে চান কি না। আলবার্ট তখনো বইটি পড়েননি। তাই তিনি সাথে সাথেই বইটি কিনে আনেন এবং অন্য সবার মতোই মুগ্ধ হয়ে যান। হলিউডের সেরা কিছু চলচ্চিত্রের নাম বললে সেখানে ‘দ্য গডফাদার’ যে থাকবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

শুচিবায়ুঃ অভ্যাস নাকি ব্যাধি?

বাংলায় আমরা যেটাকে ‘শুচিবায়ু’ বলে থাকি, সেটা বিশেষ একটা মনস্তাত্ত্বিক রোগের নাম। যাকে ইংরেজীতে ‘অবসেসিভ-কমপালসিভ ডিজঅর্ডার’ (Obsessive-Compulsive Disorder বা সংক্ষেপে OCD) বলা হয়। তবে এই রোগের লক্ষণগুলো চরম পর্যায়ে পৌছালে অথবা দৈনন্দিন জীবনে এই উপসর্গগুলোর নেতিবাচক প্রভাব পড়া শুরু করলে তবেই একে ওসিডি বলা যাবে।
//graizoah.com/afu.php?zoneid=2982870